ফেসবুক বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্ক জাকারবার্গ?

যা দাবী করা হচ্ছে-
“ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা, মার্ক জুকারবার্গ, সামাজিক বিভিন্ন নেতিবাচক প্রভাব বিবেচনা করে মানুষের কল্যাণের জন্য ফেসবুক বন্ধ করে দিচ্ছে।” -দাবীটি অসত্য

মূল উৎপত্তি
Video Of The Internet নামক একটি একটি ফেসবুক পেইজ এপ্রিল ১ তারিখে ‘A World Without Facebook’ শিরোনামে একটি ভিডিও প্রকাশ করে। ভিডিওটিতে দেখা যায়, ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা, মার্ক জাকারবার্গ, সামাজিক বিভিন্ন নেতিবাচক প্রভাব বিবেচনা করে ফেসবুক বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দিচ্ছে।

এই ভিডিওটি প্রকাশের পর গত দুই সপ্তাহে এটি ভিউ পেয়েছে প্রায় ২ কোটির মত এবং শেয়ার করা হয় ৪৭ হাজার বারের উপর।

আলোচ্য ভিডিওটির সাথে একটি বার্তা সংযুক্ত করে একটি চেইন ম্যাসেজও ভাইরাল হচ্ছে। এই ম্যাসেজের দাবী হচ্ছে, মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের জন্য ফেসবুকের ব্যবহার সীমিত করে ফেলা হচ্ছে এবং খুব শীঘ্রই ফেসবুকের বিনামূল্যে ব্যবহার বন্ধ করে দেওয়া হবে। তবে কেউ যদি নির্দিষ্ট কজন ব্যক্তিকে প্রেরিত বার্তাটি ফরওয়ার্ড করে, তবে ফেসবুক সেই ব্যক্তির একাউন্ট ডিলিট করবে না।

আলোচ্য ভিডিওটি এপ্রিল ফুল দিবস উপলক্ষে তৈরি করেছে Bayview Drive Films নামক একটি প্রতিষ্ঠান। এই ব্যঙ্গধর্মী (Satire) ফিল্মটির পরিচালক ছিলো Andy Oleck নামক এক ব্যক্তি। অর্থাৎ, ভিডিওটি ফেসবুকের অফিশিয়াল ভিডিও তো নই, উপরন্তু এটি কেবল মজা করার উদ্দেশ্যেই তৈরি করা হয়েছে।

ভিডিওটিতে মার্ক জুকারবার্গের ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে নিচের ভিডিও থেকে। এটি ব্যবহার করেই ভিডিওর কথার সাথে জুকারবার্গের ঠোট মিলানোর চেষ্টা করা হয়েছে।

বানোয়াট ভিডিওটির সমাপ্তি স্ক্রিনে লেখা আছে-

বাংলা: এই ভিডিওটি ব্যঙ্গধর্মী। বেভিউ ড্রাইভ ফিল্মস এবং এন্ড্রিউ অলেক ফেসবুক বা জুকারবার্গের সাথে সম্পর্কযুক্ত নয় কিংবা এদের দ্বারা অর্থায়িত বা সমর্থিত নয়।

এমন ম্যাসেজকে যা বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে, অপর মানুষদের ফরওয়ার্ড করতে বলে এবং এর মাধ্যমে ম্যাসেজটি ভাইরাল হয়। এই ভিডিওর সাথে সংযুক্ত চেইন ম্যাসেজটি অনেক বছর পুরনো এবং সম্পূর্ণ বানোয়াট সতর্ক বার্তা। ম্যাসেজটির ভাষাও অসংলগ্ন। এখানে কোথাও ১৮ জন, কোথাও ১০ জন আবার কোথাও ৯ জন ব্যক্তির নিকট বার্তাটি ফরওয়ার্ড করতে বলা হয়েছে।

এছাড়াও যেখানে ফেসবুক ক্রমাগত আপনার একাউন্ট লগইন করা, ম্যাসেজ আদানপ্রদান করা, কে কখন অনলাইনে আছে ইত্যাদি সাধারণভাবেই শনাক্ত করতে পারছে, সেখানে সচল একাউন্ট শনাক্ত করার জন্য ইজারদের এরূপ ম্যাসেজ আদানপ্রদানের ব্যবস্থার উপর ফেসবুকের নির্ভর করা অযৌক্তিক ও অমূলক।

চেইন ম্যাসেজ কখনই ফরওয়ার্ড করবেন না

বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে আপনার ফ্রেন্ডলিস্টের আরও ব্যক্তির কাছে একই বার্তা কপি-পেস্ট করে পাঠাতে অনুরোধ করা এসব চেইন ম্যাসেজ/ইমেইল কখনোই কাউকেই ফরওয়ার্ড করবেন না। এসব নিতান্তই বোকামি এবং তৈরি করা হয় মানুষকে বোকা বানানোর জন্য।

মনে রাখা প্রয়োজন, মার্ক জুকারবার্গ বা ফেসবুক যদি কোন বার্তা আপনাকে পাঠাতে চায়ই, তবে তারা আপনার বা আপনার বন্ধুদের ব্যক্তিগত বার্তার উপর নির্ভর না করেই, বিশেষ এলার্ট বা ইমেইলের মাধ্যমে সরাসরি এর ব্যবহারকারীদের সাথে যোগাযোগ করার সুযোগ রাখে। আর যাই হোক, এমন বার্তা তারা তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে না বরং তাদের নিজস্ব ফেসবুক পেইজ থেকেই প্রকাশ করবে

মুল পোস্ট : https://www.jaachai.com/posts/post-2385